True_Love_Never_Breaks🥰🥰 #Part_01

#True_Love_Never_Breaks🥰🥰
#Part_01
#ফায়েজা_সুলতানা Lamisha Iftinan Piu

মা—-এই পিউ উঠনা দেখ তোর ফোন ভাজতেছে।

পিউঃ —-বাদ দাও মা আমি আর একটু ঘুমায়।

মাঃ—-আরে মিম হলে তোর বারো টা বাজাবে।

পিউঃ —উফফ মা তুমিও না। ওকে এদিকে দাও তো।

মাঃ—-এই নে।ফোন টা নিয়ে কানে দিল পিউ।

মিমঃ ——ঐ বজ্জাতনি কাটাসনি,শাঁকচুন্নি, এনাকন্ডা,বিলাইনি,জিরাফের গফ,হনুমানের বউ,লাল সাপ, পিংক গরু,সাদা হাতি,খেদার গজব, টিকটিকি,তেলাপোকার এক্স,হিরো আলমের পাঁচ নাম্বার সালি,কুদ্দুসসার নানি,টাকলুর খালা এতক্ষণ লাগে ফোন ধরতে।ফোনের ঐ পাশ থেকে।

পিউঃ —-আরে আস্তে মা থাম এবার। কি হয়ছে বল এত রাগছিস কেন?

মিমঃ —-কি? কি বললি তুই? আমি রাগবো না? আজ আমার গায়ে হলুদ আর আজ তুই এখানে না এসে পরে পরে ঘুমাচ্ছিস?

পিউঃ —-কি করবো বল আমার না যেতে ইচ্ছা করতেছেনা রে।

মিমঃ —-কেন আসবিনা শুনি। শুন তুই আসবি তুকে আসতেই হবে।

পিউঃ ——আসলে,যে ওর সামনে পরতে হবে আর আমি চাইনা কোন প্রতারকের সামনে পরতে।

মিমঃ —-পিউ আমার মনে হয় তোর কোথায় ভুল হচ্ছে ভাইয়া এরকম না।

পিউঃ —–কি এরকম না আমি নিজের চোখে দেখেছি ঐদিন।

মিমঃ ——কি দেখেছিস বল?

পিউঃ —-শুন ঐদিন আমি,,,,

অতীত,,,

পিউঃ _—-এই মিম জানু আজ আমি আরিয়ান কে সারপ্রাইজ দিব আজ ওর প্ল্যাটে যাবো ওকে না বলে।

মিমঃ —ওকে যা।

পিউঃ —-তুই যাবিনা?

মিমঃ —- না তুই যা।

পিউঃ —-ওকে বাই।

মিমঃ —-বাই।

পিউ আরিয়ানের বাড়িতে গেল। দরজা খোলায় ছিল তাই আর নক করতে হয়নি। ঢুকে পরলো রুমে। গিয়ে যা দেখল তার জন্য মোটেও প্রস্তুত ছিলনা।দেখল যে আরিয়ানকে একটা মেয়ে জড়িয়ে আছে আর আরিয়ানের হাত ঐ মেয়ের কোমরে।আর আরিয়ান ও কিছু বলতেছনা ঐ মেয়েকে।
সেটা দেখে পিউ দৌড়ে চলে আসল। এরপর আরিয়ানের সাথে ব্রাকআপ করে দিলো।আরিয়ান অনেক কিছু বলতে চেয়েছিল বাট পিউ কোন কথা না শুনে চলে এসেছিল।ঐ দিনের পর থেকে আর কোন যোগাযোগ রাখেনি পিউ আরিয়ানের সাথে।এই ছিল অতীত।

মিমঃ —–আমার মনে হয় পিউ তোর দেখায় ভুল ছিল।
পিউঃ —-আমার দেখায় কোন ভুল ছিলনা আমি যা দেখেছি ঠিক দেখেছি।

মিমঃ —-ঐ সব নিয়ে পরে বলবো তুই আগে আয় এখানে।

পিউঃ —-প্লিজ জানু আমি না আসলে কি হয় বল?

মিমঃ —-না তুই আসবি আর না আসলে আমি বিয়ে তো দূর থাক গাঁয়ে হলুদ ও মাখবো না।

পিউঃ —-ওকে ওকে আসতেছি।কল কেটে একটা চাপা নিঃস্বাস পেলল পিউ আর ভাবতে লাগল সেই দিনের কথা যখন ওর মুখ দেখা ছাড়া সকাল হতনা আর রাত শেষ হতনা ভাগ্যের কি পরিহাস আজ তার থেকে পালাচ্ছি। কেন আগের দিন গুলো স্থায়ি হলো না, ভুলবনা কখনো সেই দিন আমি যেই আমার জীবনে প্রথম এসেছিলে তুমি ।

সেইদিন,,,,,

পিউ সাদু রে নিয়ে মিমের বাসায় গেল।আর মিমের আম্মু নাস্তা দিল পিউদের।হঠাৎ পিউর উরনায় একটু ঝোল পরল ত সে পরিস্কার করার জন্য মিমের বাথরুমে গেল।আর ঐ দিকে আরিয়ান হচ্ছে মিমের ভাই।ওর বাথরুমে ট্যাব নষ্ট হয়ছে তাই মিমের টায় আসল ও জানত না বাথরুমে কেউ ছিল।আর হ্যা পিউ ও জানতনা মিমের ভাই আছে কারন ভাই নিয়ে কোন দিন কথা হয়নি আর আরিয়ান বাসায় ও ছিলনা। ও লন্ডন ছিল।আর এখন পড়া লেখা কমপ্লিট করে দেশে এসেছে বাবার বিজনেস দেখবে তাই।যাই হোক গল্পে আসি।পিউ দরজা বন্ধ না করেই উরনা পরিস্কার করতেছে তখন আরিয়ান বাথরুমে ডুকে গেল।হঠাৎ এভাবে কেউ আসাতে পিউ ভয় পেল আর তাই চিৎকার করতে লাগল।আরিয়ান ওর চিৎকার বন্ধ করতে মুখে হাত দিয়ে চেপে ধরল।

আরিয়ানঃ —-এই মেয়ে প্রবলেম কি চিৎকার দিচ্ছো কেন?

—ওমম ওমম।আরিয়ান দেখল তার হাত পিউর মুখে তাই কথা বলতে পারতেছে না।ছেড়ে দিল তখন।

পিউঃ —-ঐ মিয়া না চিৎকিরিয়ে কি করব আপনার সাহস ত কম না।আপনি বাথরুমে কেন ডুকলেন।এই ওয়েট ওয়েট আপনি কে এই বাড়ীতে কখনো দেখিনি ও আল্লাহ তার মানে চুর।আচ্ছা চোর কি,এতত কিউট হয়।হয়ত বা হয়।চোর কথাটা মনে উটতেই আবার চিৎকার দিবে আবারও আরিয়ান মুখ চেপে ধরল।

আরিয়ানঃ —ঐ মেয়ে প্রবলেম কি বলতো? কি ভেবে আবার চিৎকার দিতে যাচ্ছো?

পিউঃ —-এই চোর হাত সরান সরান বলছি। আপনাকে আমি চিনে পেলেছি আপনি একটা চোর। চুরি,করার মতলবে এই বাড়ীতে ডুকেছেন আর আমি থাকতে আমার বেস্টুর বাড়ীতে চুরি তাও আমার সামনে নো ওয়ে কোনদিন ও না।আপনাকে আমি কেলানি খাওয়াব ওয়েট এই বলে আবার ও চিৎকার দিল।উপরে হৈচৈ শুনে সবাই আসল।

মিমঃ —-কিরে পিউ কি হয়ছে এভাবে চিৎকার দিলি কেন।
পিউঃ ——দেখ দেখ আমি একটা চুর ধরেছি।এই বেটা চুরি করার মতলবে তোর রুমে ডুকেছিল।

মিমঃ —-মানে কি বলতেছিস পিউ তুই এসব?

পিউঃ —-আমি ঠিকই বলতেছি, একটা দড়ি দে আগে,চোরটাকে বাধি।
পিউর কথা চুনে সবাই হেসে চলে গেল উরা বুঝতে পেরেছে পিউ আরিয়ান কে চিনে নি তাই এইসব বলেছে।শুধু মিম আর সাদু রয়ে,গেল।তখন মিম বলল
মিমঃ —-আরে ভাইয়া তুই চুপ কেন কি হয়ছেরে?

পিউঃ —-আরে ঐ কুত্তি কই তুর ভাইয়ারে ওরে ডাক চুর টাকে বাধতে হেল্প করবে এনি ওয়ে তর ভাই আছে নাকি কই কোনদিন ত দেখলাম না।সুন্দর আছেত প্রেম করতে পারমুত।

সাদুঃ —–ওরে পরে প্রেম করিস আগে কাকে বাধার জন্য তৈরি হচ্ছিস ওর পরিচয় নে সাদু বলল।

পিউঃ —-কিসের পরিচয় নিমু চুরের আবার পরিচয়।ঐ মিম তোর ভাইরে ডাক দে।

মিমঃ —–ঐ টাই তো আমার ভাইয়া জানু।তোর ভাইয়া কই এখানে?

পিউঃ ——এখানে আমি তুই, সাদু আর এই চোর ছাড়া ত,,,,, মানে এই চোর তোর ভাই,,,?

আরিয়ানঃ —–হুম আমি ওর ভাই। কেন প্রেম করবা নাকি?

পিউঃ —–ওরে আল্লাহ মোই নাই জানু তুই থাক আমি যায়।পিউ যায়তে গেলে আরিয়ান হাত ধরে পেলে ওর।আর আরিয়ান মিম কে ইশারা করে চলে,যাওয়ার জন্য। মিম সাদু কে নিয়ে চলে গেল।

—-ঐ জানু আমারে পেলে,কই যাস আমারে নিয়ে যা। যাক বাবা চলে গেল ঐটা বেস্টু না শত্রু।আল্লাহ এবারের মত রক্ষা কর আর কোনদিন কাবিল গিরি করতে যামুনা।এই সব বলতেছে আর বুকে থু থু দিচ্ছে। আর তা দেখে আরিয়ান মিটি মিটি হাসছে।না কিছুক্ষণ মজা নেওয়া যাক বলে হাসি বন্ধ করে পিউর সামনে আগাচ্ছে। আর আরিয়ানের আগানো দেখে পিউ পিছাচ্ছে।
পিউঃ —–আপনি আগাচ্ছেন কেন?

আরিয়ানঃ ——তুমি পিছাচ্ছ কেন?

পিউঃ —–আপনি আগাচ্ছেন তাই আমি পিছাচ্ছি।

আরিয়ানঃ —-তুমি পিছাচ্ছো তাই আমি আগাচ্ছি।

পিউঃ —-দেখেন ভাল হবেনা কিন্তু আমাকে যেতে দিন।

আরিয়ানঃ —–কেন আমাকে,বাধবেনা, কেলানি খাওয়াবেনা।আমিত তোমার কেলানি খাওয়ার জন্য অধির আগ্রহে বসে আছি সোনা।

পিউঃ —-এই চে চে এই সব কি বলেন আমি কেন আপনাকে বাধতে যাব আপনার ভুল হচ্ছে। মনে হয় কেউ বলেছিল তাইনা কে,বলেছে বলেন আমি ওর খবর করব বাট এখন আমাকে যেতে দিন না প্লিজ।

আরিয়ানঃ —-এত সুইট পেচ করনা সোনা খেয়ে ফেলতে ইচ্ছে করতেছে।

পিউঃ —-এসব কি বলেন ভাইয়া পেচ কি খাওয়ার জিনিস।

আরিয়ানঃ —-ওরে আল্লাহ এতো একদম পিচ্চি মেয়ে।আচ্ছা যাও এবারের মত ছেড়ে দিলাম।পিউ চলে যাচ্ছে তখন আরিয়ান আবার ডাক দিল।

পিউঃ — জি বলেন।

আরিয়ানঃ —— এই ভাবে যাবে নাকি এই বলে পিউর বড়ির দিকে ইশারা করল।পিউ আরিয়ানের দৃষ্টি লক্ষ রেখে যখন নিজের দিকে তাকাল তখন চোখ বড় হয়ে গেল।গায়ে,উরনা নাই ঝগড়া করতে গিয়ে যে আধা পরিস্কার করা উরনাটা কখন যে নিছে পরে গেছে খেয়াল করেনি।সাথে সাথে বুকে হাত দিল বৃথা ডাকার চেষ্টা। তখন আরিয়ান উরনাটা নিয়ে পিউর গায়ে জড়িয়ে দিল আর কানে কানে বলল এত লজ্জা পেওনা একদিনে এত সক্ট হজম করতে পারবনা তখন ভুল কিছু হলে,দোষের হয়ে,যাবে।পিউ আরিয়ানের কথার আগা মাথা কিছু বুঝলনা।।না বুঝে মাথা ঝাকাল।আরিয়ান সেটা দেখে হেসে দিল।পিউ চলে গেল।আরিয়ান পিউর যাওয়ার পথে তাকিয়ে আছে।আর বলতেছে এতদিন এত মেয়ে,দেখলাম কাউকে ভালো লাগেনি। এত মেয়ে প্রপোজ করল বাট কারোটা এক্সেপ্ট করিনি কেন সেটা জানিনা।বাট আজ মনে হচ্ছে এতদিন কাউকে মনে না ধরার কারন তুমি ছিলে।হুম তোমার কথা বলার স্টাইল, অবুঝ চাহনি বোকা বোকা কথা কয়েক মিনিটেই আমার মনটা কেড়ে নিলো।নাম টা কি জানি না।ওকে প্রবলেম নাই মিম থেকে জেনে,নিবনি।পিউ ঐখান থেকে এসে সাদু আর মিম কে নিয়ে কলেজে চলে গেল।
পিউ এই পিউ কি হলরে তোর কথা বলতেছিসনা কেন।ঘোর কাটল পিউর যা ভাবছিল ঐটা কল্পনা ছিল সেটা মাথয় আসল।হুম বল মা।উঠ এখনো ফ্রেশ হোসনি।হচ্ছি মা এইবলে পিউ ফ্রেশ হওয়ার জন্য বাথরুমে গেল।কান্না আসতেছে পিউর এতদিন হয়ে গেল ব্রাকআপের তবুও কেন ওকে ভুলতে পারতেছেনা। পারতেছনা কষ্ট গুলা মোচে ফেলতে বা মেনে নিতে আর কাউকে। বসাতে পারতেছেনা কেন আরিয়ানের জায়গায় অন্য কোন হৃদয়কে,,,,,,,,,,,,

চলবে,,,,,,,,,,,,,,,?

ভুল ত্রুটি মার্জনীয়,,,,,😊😊

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here